তরুণ শিল্পী হাসান মোর্শেদের চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত


বন্ধুরা, তোমরা তো কিশোর চিত্রশিল্পী হাসান মোর্শেদের নাম শুনেছ। তোমাদের প্রিয় পত্রিকা ফুলকুড়িতেই তো সে কত ছবি একেছে । সম্প্রতি জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে তরুণ চিত্রশিল্পী হাসান মোর্শেদের একক চিত্র প্রদর্শনী হয়ে গেলো। এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেছেন কে জানো? জাতীয় অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। তোমরা হয়তো জানোনা, হাসান মোর্শেদ জন্মগ্রহণ করেছে একটি শিল্পী পরিবারে । সে বিশিষ্ট চিত্র শিল্পী কামরুল হাসান কালনের পুত্র।

প্রদর্শনীতে স্থান পায় হাসান মোর্শেদের ২৫টি চিত্র কর্ম। ১৯৯৮ ও ১৯৯৯ সালে আঁকা শিল্পীর এসব চিত্রকর্মে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে সমাজের বাস্তব চিত্র। কারখানার মানুষ, গ্রামীণ হাট, গৃহভূত্যের ওপর নির্যাতন, বন্তিজীবন, ফুলবিক্রি, বিকলাঙ্গ জীবন, সায়াহ্নের প্রার্থনা, ভিক্ষা, আবর্জনা, বেকারত্ব ইত্যাদি চিত্রকর্ম সমাজের আসল চিত্রটি ফুটে উঠেছে। কারখানার মানুষ চিত্রে যেমন নজরে পড়েছে মালিক শ্রমিক পার্থক্য, তেমনি বাদ পড়েনি নির্গত পদার্থের দ্বারা পরিবেশ দূষণ । গ্রামীন হাট চিত্রে আধ কাদাজল, ভাঙা চালার নিচে হারিকেনের আলোকে দোকানী বসে আছে। ক্রেতা হাটু জল কাদায় দাঁড়িয়ে প্রয়োজনীয় দ্রব্য কিনছে। আবার ফুল বিক্রি চিত্রে স্কুল পড়য়া এক শিশু হাতে ফুল নিয়ে গাড়ীর দরজায় পাশে দাড়িয়ে আছে। গাড়ীর ভিতর একই বয়সের অপর শিশুর হাতে বই, খাতা, কলম, পাশে বাবা, মা।

তার পাশে ক্রিকেট খেলার সরঞ্জাম। বিকাল ৪টায় শুরু হয় একক চিত্র প্রদর্শনী । সাধারণ আর্ট পেপারে ১৮ X২২ সাইজের প্রতিটি চিত্রই শিল্পীর পছন্দমত রং দিয়ে সাজানো। প্রদর্শনীর আগে মোর্শেদের আব্বা শিল্পী কামরুল হাসান কালন এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তবা রাখেন।

প্রদর্শনীতে সমাজের বিভিন্ন স্তরের লোক উপস্থিত হয়ে মোর্শেদকে উৎসাহিত করেন। জাতীয় অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান, বিশিষ্ট সাংবাদিক সানাউল্লাহ নুরী ও অধ্যাপক শামছুল হুদা সহ অসংখ্য গুণীজন তরুণ চিত্রশিল্পী মোদের চিত্রকর্ম প্রত্যক্ষ করেন। বিশিষ্ট বাক্তিবর্গ মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, কিশোর চিত্র শিল্পী হাসান মোর্শেদের নিপুণ হাতের আঁকা ছবিগুলো সত্যিই আমাদের মোহিত ও আনন্দ দিয়েছে। সে আমাদের সমাজের বহুবিধ বৈশিষ্টতার ছবিগুলো যে ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন, তাতে খুব খুশী হলাম। তার আকা ছবিতে তার মূর্ত রূপ দেখে মুগ্ধ হলাম। মোর্শেদ একজন সৃজনশীল বড় শিল্পী হতে পারবে এতে কোন সন্দেহ নেই।

যাত্রা অব্যাহত রাখলে মোরশেদ একদিন তার বাবা প্রখ্যাত শিল্পী কালনকে ছাড়িয়ে যাবে এটাই এ মুহূর্তের ধারণা।

শিশু কিশোর মাসিক
ফুলকুঁড়ি
বর্ষ ২১ সংখ্যা ১০
ফেব্রুয়ারী ২০০০

free counters

Hasan Morshed © 2024. All Rights Reserved